বুধবার , অক্টোবর 28 2020
Home / Slide1 / মেসিকে পিএসজিতে আনতে চেষ্টা চালাচ্ছেন নেইমার

মেসিকে পিএসজিতে আনতে চেষ্টা চালাচ্ছেন নেইমার

গাজী নাসিফুল হাসান: মেসি বার্সেলোনা ছাড়তে চান এটা প্রচার হবার পর যাদের আর্থিক সামর্থ্য রয়েছে সেই ক্লাবগুলো নামছে আট ঘাট বেধে। যার দৌড়ে সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছে যে ক্লাব সেটি হচ্ছে ম্যানচেষ্টার সিটি। এই ম্যানসিটির নাম বারবার শোনা যাচ্ছে। এছাড়াও ইন্টার মিলানের নাম শোনা যাচ্ছে। তবে মেসিকে চাইলেই যে কেউ কিনতে পারবেনা। কেননা উচ্চ মূল্য সবাই দিতে পারবে না। তবে মেসিকে যারা কিনতে পারবে তাদের মধ্যে একটি ক্লাব হচ্ছে পিএসজি। এতদিন পিএসজি কিছু না বললেও এবার পিএসজির স্টার এবং মেসির সাবেক সতীর্থ ও বন্ধু নেইমার মেসিকে পিএসজিতে আনার জন্য পিএসজি ক্লাব কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করেছেন বলে জানা গিয়েছে।

মেসি ও নেইমারের সম্পর্কে সকলেই জানে। তারা দুজন অনেক ভালো বন্ধু। খেলা না থাকলে প্রায়ই দুজনকে একসাথে ঘুরতে দেখা যায়। আলাদা ক্লাবে খেললেও দুজনের মধ্যে সম্পর্কে কোনো চির ধরেনি। নেইমারকে বার্সেলোনায় ফিরিয়ে আনার জোর প্রচেষ্টা চালিয়েছিলেন মেসি। তবে বার্সেলোনা ক্লাব কর্তৃপক্ষ ব্যর্থ হয়। তবে এবার বন্ধু নেইমার চায় মেসি এবার ফিরে আসুক তার কাছে। এমনটাই জানিয়েছেন বেইন স্পোর্টসের এক সাংবাদিক।

শোনা গিয়েছে মেসি ও নেইমারের মধ্যে কথাও হয়েছে এ বিষয়ে। মেসির সাথে কথা হবার পর নেইমার পিএসজিকে জানিয়েছেন। পিএসজিও প্রস্তুত টাকা ঢালতে। কেননা পিএসজি চায় চ্যাম্পিয়নস লীগ ট্রফি। আর মেসি-নেইমার-এমবাপ্পে তিণ ত্রয়ী থাকলেও ইউরোপে পিএসজি কতটা ধ্বংসযজ্ঞ চালাতে পারে তা আশা করি অনুমান করতে কষ্ট হবে না।

তবে এ বিষয়ে মেসির এজেন্ট অর্থ্যাৎ মেসির বাবার সাথে কথা বলেনি পিএসজি। কেননা মেসিকে কিনতে হলে অনেক হিসেব নিকেশ করতে হবে। কারণ তানাহলে উয়েফার ফেয়ার প্লেও ভঙ্গ হতে পারে সেক্ষেত্রে তখন চ্যাম্পিয়নস লীগে নিষিদ্ধ হতে পারে।

বলাই বাহুল্য ম্যান সিটি ও পিএসজি এ দুটি ক্লাবের যথেষ্ট আর্থিক সামর্থ্য রয়েছে মেসির। আর এ দুটি ক্লাবের স্পোর্টিং প্রজেক্টের সাথে মেসির লক্ষ্য মিলে যায়। তাই এ দুটি ক্লাব মেসিকে নেবার মিশনে নামলে কে জিতবে তা বলা মুশকিল।

About Md Shahadat Hossain

Check Also

পগবার ফুটবল ছাড়ার ঘোষণা গুজব!

ইকবাল হাসান: ‘ফ্রান্স সরকারের ইসলাম বিদ্বেষী মনোভাবের কারনে ফুটবল ছাড়ছেন পগবা’- এরকম একটি খবর মুহূর্তে …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।