মঙ্গলবার , অক্টোবর 27 2020
Home / আন্তর্জাতিক ক্রিকেট / টি-টুয়েন্টিতে ডট বল কম খেলার তালিকায় সেরা দশে মুশফিক

টি-টুয়েন্টিতে ডট বল কম খেলার তালিকায় সেরা দশে মুশফিক

জাকির মামুনঃ  বাংলাদেশের নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান কে?
এ প্রশ্নের উত্তর টা হয়তো মুশফিকই হবেন৷ কেনোনা গত কয়েকটি বছর অন্যান্য ব্যাটসম্যানের চেয়ে অনেকটা বেশি ধারাবাহিক মুশফিক৷
বাংলাদেশের মিডল অর্ডারের দায়িত্বটা যেনো তারই কাঁধে৷ ক্রিকেটের তিন ফরমেটেই মিডল অর্ডার টা সামলান এই মুশফিক৷ যার কারনে তিনি সাফল্য পাচ্ছেন৷
ব্যাটিং পজিশন পরিবর্তন হলেই কৌশলের ক্ষেত্রে ও ভিন্নতা আনতে হয়৷ এক্ষেত্রে সবাই সফল হয়না৷
গত পাঁচবছর ধরে মুশফিক কেনো সফল তা বিশ্লেষণ করতে গেলে দেখা যায় যে, স্পিনারদের বিরুদ্ধে মুশফিক সবার চেয়ে ভালো খেলছে৷ মিডল অর্ডারে উইকেটে থিতু হয়ে স্ট্রাইক রোটেড করে খেলাটা অনেকটা কঠিন ৷ দ্রুত উইকেট পড়ে গেলে চাপটা আরও বেশি থাকে৷ সেক্ষেত্রে স্ট্রাইক রোটেড করে ব্যাট করতে গিয়ে কষ্টসাধ্য হয়ে যায়৷
আর মুশফিক এই কাজটাই করে দেখাচ্ছেন৷ ডট বল যেকোনো দলকে চাপে ফেলে দেয়৷

২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর থেকে টি -টুয়েন্টি ফরমেটে  স্পিনারের বিপক্ষে সেরা ব্যাটসম্যান কারা, তা নিয়ে বেশ  আলোচনা চলছিলো। স্পিনারদের বিপক্ষে কারা স্ট্রাইক রোটেট করে দ্রুত রান তুলতে পারেন আর বেশি রান তুলতে পারেন, সেটার খোঁজ নেওয়া হচ্ছিলো৷ দলের রানের চাকা ঠিক রাখতে ডট বল যত কম খেলা যায় ততই মঙ্গল৷
ডট বল কম খেলে রানের গতি ঠিক রেখেছে এমন প্লেয়ারদের একটি সমীক্ষা করা হয়৷

স্পিনারদের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে অন্তত ৫০০ বল খেলেছেন এমন ব্যাটসম্যানদের নিয়েই এই তালিকা করা হয়েছে। সেখানে সেরা দশে স্থান করে নিয়েছেন মুশফিক। বিরাট কোহলি, এবি ডি ভিলিয়ার্স, বাবর আজমদের মত স্পিন মোকাবেলা করার সক্ষমতা রয়েছে মুশফিকের৷ কাভার ড্রাইভ,  সুইপ, রিভার্স সুইপ, প্যাডেল সুইপ, ল্যাপ সুইপসহ মোটামুটি সবজায়গায় খেলতে পারেন মুশফিক৷ যার কারনে সহসা রান তুলতে পারছেন৷

২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর থেকে ডট বল খেলার হার:

স্যাম বিলিংস – ২৪%

বিরাট কোহলি – ২৫%

এবি ডি ভিলিয়ার্স – ২৬%

করুণ নায়ার – ২৬%

বাবর আজম – ২৬%

কেএল রাহুল – ২৬%

স্টিভ স্মিথ – ২৮%

রাসি ফন ডার ডুসেন – ২৮%

মুশফিকুর রহিম – ২৯%

About zakirmamun

Check Also

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের স্থগিত হওয়া ম্যাচ নিয়ে চিন্তিত আইসিসি

ইকবাল হাসান: মহামারি কোভিড-১৯ এর জন্য আয়োজন করা যাচ্ছে না টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচগুলো। তাই, স্থগিত …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।